সোমবার, ১৭ জুন ২০২৪, , ১০ জ্বিলহজ্ব ১৪৪৫

মহানবী (স.) কে নিয়ে কটূক্তি।। ক্ষোভে উত্তাল কুবি

মহানবী (স.) কে নিয়ে কটূক্তি।। ক্ষোভে উত্তাল কুবি
ছবি- সংগৃহীত

 কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় (কুবি) পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের ১৬ আবর্তনের শিক্ষার্থী শ্রী স্বপ্নীল মুখার্জি বিরুদ্ধে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত এবং মহানবী হযরত মুহাম্মদ (স:)কে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে উঠেছে। এর আগে ইসলাম ধর্মকে নিয়ে একাধিকার কটূক্তি করায় অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার (১৪ মে) সন্ধ্যায় প্রক্টর বরাবর সাধারণ শিক্ষার্থীরা এ অভিযোগ করেন। এতে বলা হয়, স্বপ্নীল মুখার্জি তার ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে ইসলাম ধর্মের মৌলিক বিষয়কে কটাক্ষ করে কুরুচিপূর্ণ, উসকানিমূলক স্ট্যাটাস এবং মহানবীকে অবমাননামূলক পোস্ট করে। তার এমন গৃহীত কাজের প্রেক্ষিতে সাধারণ শিক্ষার্থীদের মধ্যে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষ বিরাজ করছে। যা আমাদের অসাম্প্রদায়িকতার চেতনার পরিপন্থি। বিশ্ববিদ্যালয়ের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষার্থে ছাত্রের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য আবেদন জানান শিক্ষার্থীরা। বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের মাঝে সমালোচনা ও প্রতিবাদ করতে দেখা গেছে। পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থী নীলুফা আক্তার খাদিজা ফেসবুক পোস্টে লিখেন, হৃদয়ে রক্তক্ষরণ হচ্ছে, স্বপ্নীল মুখার্জি দুনিয়ার সর্বকালের শ্রেষ্ঠ মানব মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা:) কে নিয়ে কটূক্তি করেছে। একাধিকবার তাকে এ কাজে বিরত থাকার জন্য বিভিন্ন মাধ্যমে বলা হয়েছে। কিন্তু সেসবের তোয়াক্কা না করে প্রতিনিয়ত তার সাম্প্রদায়িক মনোভাব এবং উগ্রতা দেখিয়ে আসছে। কয়েকটি ফেসবুক পোস্ট থেকে জানা যায়, তার ফেসবুক আইডি থেকে গত ২০ ফেব্রুয়ারি ছোটদের বর্ণমালা শেখার একটি বইয়ের একটি পৃষ্ঠার ছবি (একটি গিটারের ছবিসহ লিখা আছে গ-তে 'গান বাজনা ভালো নই') ছবি নিয়ে ক্যাপশন (ছবি তো গিটারের, গান কীভাবে আসলো? ছবি কই আঁকছে? এটা তো রং করছে। আতশবাজি ফোটানোর সাথে রং তামাশার সম্পর্ক কি?) দিয়ে পোস্ট করেন। পোস্টের মন্তব্যে তিনি আসিফ আহমেদ নামে এক জন ব্যক্তিকে মেনশন করে বলেন, "হযরত যেখানেই যেত যুদ্ধ করতো। বদর না ফদর আরও কত কি নাম আছে। এলাকার মানুষগুলাকে একটা দিনও শান্তি দেয়নি। একই ব্যক্তিকে মেনশন করে আরও মন্তব্য করেন, "এ জন্যই মুসলিমদের সাথে কথা বলি না কারণ তাদের ব্রেইন নাই। আফগানিস্তান নিয়ে কথা বলতে বলতে হিন্দুধর্মের দেবতা টেনে নিয়ে এসে বলে টপিকের মাঝে থাকতে। তার বিরুদ্ধে ধর্ম অবমাননার অভিযোগ এনে কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে রোভার স্কাউটস থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে বলে নিশ্চিত করেছেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় রোস্কাউটস এর সিনিয়র রোভারমেট তোফাজ্জল হোসেন। এ বিষয়ে প্রক্টর (ভারপ্রাপ্ত) কাজী ওমর সিদ্দিকী বলেন, আমি ফেসবুকে তার বিরুদ্ধে অভিযোগ দেখেছি এবং এটা যেহেতু ধর্মীয় ইস্যু আইন শৃঙ্খলা বাহিনীকে অবগত করে রেখেছি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে পদক্ষেপ নেয়া হবেঅ। আমাদের কাছে এখনও লিখিত কোনো অভিযোগ আসেনি।  বুধবার (১৫ মে) প্রক্টোরিয়াল বডির বৈঠক রয়েছে। তার বিরুদ্ধে অভিযোগের সত্যতা প্রমাণ হলে সঠিক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান অধ্যাপক ড. সজল চন্দ্র মজুমদার বলেন, এ ব্যাপারে আমি অবগত নই। ধর্ম অবমাননার অভিযোগ প্রমাণিত হলে বিভাগ থেকে কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয় না, এ বিষয়ে প্রশাসন থেকে পদক্ষেপ নেবে। সনাতন বিদ্যার্থী সংসদ কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ে শাখার সাধারণ সম্পাদক শ্রী দ্বীপ চৌধুরী বলে, স্বপ্নীল খুবই নিন্দনীয় কাজ করেছে। একজন মহান ব্যক্তি নিয়ে সে এ ধরনের কথা বলতে পারে না। তার বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্য প্রমাণ হলে সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটি ব্যবস্থা নেবে। ধর্মীয় অবমাননার কারণ জানতে অভিযুক্ত স্বপ্নীলকে একাধিকবার ফোন করলেও রিসিভ করেনি।