রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, , ১৮ জ্বিলক্বদ ১৪৪৫

বিশ্ব মুক্তগণমাধ্যম দিবস আজ

দেশের গণমাধ্যম আজ শৃঙ্খলিত- বাংলাদেশ ন্যাপ

দেশের গণমাধ্যম আজ শৃঙ্খলিত- বাংলাদেশ ন্যাপ
ছবি/সংগৃহীত

সমগ্র বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস পালন করলেও দু:খজনক হলেও সত্য যে বাংলাদেশের গণমাধ্যম আজো পরিপূর্ণ মুক্ত নয়। এমন মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-বাংলাদেশ ন্যাপ চেয়ারম্যান জেবেল রহমান গানি ও মহাসচিব এম. গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া। নেতৃবৃন্দ বলেন, স্বাধীনতার ৫৩ বছরে বার বার শাসকগোষ্ঠীর রক্তচক্ষুর কাছে গণমাধ্যমকে অসহায় আত্মসমর্পণ করতে হয়েছে। এখনও সেই ধারার বাইরে নয় বাংলাদেশের গণমাধ্যম। শাসকগোষ্টি মুখে গণমাধ্যমের স্বাধীনতার কথা বললেও প্রকৃত অর্থে তারাই গণমাধ্যমের স্বাধীনতাকে পদদলিত করে আসছে। শাসকগোষ্টি সব সময়ই নিজেদের স্বার্থে গণমাধ্যমকেই টার্গেট করে। শুক্রবার (৩ মে) ‘বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম দিবস’ উপলক্ষে গণমাধ্যমে এক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন তারা। সরকারের সমালোচনা করায় এবং বিরোধী সংবাদ পরিবেশনের কারণে বর্তমান সরকারের আমলে টিভি চ্যানেল বন্ধ হয়েছে এবং সম্পাদক-পরিচালক কারাবন্দি হয়েছেন। জাতীয় সংসদে দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী, মন্ত্রী ও সরকাররি দলের সিনিয়র সদস্যদের চরম সমালোচনার শিকার হয়েছে সংবাদপত্র, সম্পাদক ও সাংবাদিকরা। সব মিলিয়ে বর্তমানে বাংলাদেশে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা শাসকগোষ্টি কর্তৃক নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে।  বাংলাদেশের গণমাধ্যম এখন ইতিহাসের সবচাইতে ক্রান্তিকাল অতিক্রম করছে বলেও তারা মন্তব্য করেন। সরকারের নগ্ন থাবায় সংবাদমাধ্যম আজ শৃঙ্খলিত।  গণমাধ্যমে যুগোপযোগী এবং মানসম্মত পরিবেশনা না থাকলে গণমাধ্যম দারুণ হুমকির মুখে পরবে, যা জাতির জন্যও দীর্ঘমেয়াদে ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে। তাই গণমাধ্যমের স্বাধীনতা পুরোপুরি নিশ্চিত করা সময়ের দাবি।